নিউজরুম ৭১॥ শিক্ষামন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি বলেছেন, বহু চেষ্টা করেও বঙ্গবন্ধু কন্যার মনোবল ভাঙা যায়নি। কারাগারে বসেই তিনি সেদিন দিনবদলের খসড়া তৈরি করেছিলেন। সেই ধারাবাহিকতায় দেশে গণতন্ত্র ফিরে আসার পথ সুগম হয়েছিল।

বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে রবিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে স্বপ্ন ফাউন্ডেশন আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে যখন ২০০৭ সালের ১৬ জুলাই অবরুদ্ধ করা হয় তখন আমরা জানি কিভাবে শ্রমজীবী লোকদের মামলা দেয়া হয়েছিল আমরা জানি। তাকে কিভাবে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করা হয়েছিল আমরা সেটাও জানি। শেখের বেটির মনোবল এত সহজে ভাঙা যায় না। সব নিয়মকানুন লঙ্ঘন করে শেখ হাসিনাকে ১১ মাস নির্জন কারাবাসের রাখা হয়েছিল। মানসিকভাবে তাকে শেখ করে দেয়ার চেষ্টা চলে। শারীরিকভাবেও তাকে বারবার হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। ১৯ বার তার ওপর আক্রমণ হয়েছে। সব অনাচার সহ্য করে তিনি এগিয়ে গেছেন।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, আমরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবরকে সপরিবারে হারিয়েছি। বঙ্গবন্ধু কন্যাকে কারাবন্দী করে রাখা হয়েছিল। ১১ মাস কারাগারে কারাবন্দী থাকার পর মুক্তি পান বঙ্গবন্ধু কন্যা। এই কারামুক্তির দিনটি বাঙালি জাতির জন্য একটি গর্বের দিন। কারণ এই দিনে গণতন্ত্র মুক্তি পেয়েছিল।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহামুদ স্বপন এমপি, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু আহমেদ মন্নাফি, সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ ও স্বপ্ন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান রিয়াজ উদ্দিন রিয়াজ, উপদেষ্টা এম ইসফাক আহসানসহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *