নিউজরুম ৭১॥ করোনা মহামারির কারণে এক বছরেরও বেশি সময় ধরে বন্ধ থাকা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটির মেয়াদ আরেক দফা বাড়ল। আগামী ২৯ মে পর্যন্ত এই সময়সীমা বাড়িয়েছে সরকার।

শনিবার রাতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনাভাইরাসের সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির কারণে শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মচারী ও অভিভাবকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও সার্বিক নিরাপত্তার বিবেচনায় এবং কোভিড ১৯ সংক্রান্ত জাতীয় পরামর্শক কমিটির সঙ্গে পরামর্শক্রমে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চলমান ছুটি আগামী ২৯ মে পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়েছে। এই সময়ে অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে এবং শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবেন।

পূর্বঘোষিত সময় অনুযায়ী আগামী ২৩ মে স্কুল-কলেজ খোলার কথা ছিল। তবে করোনার প্রকোপ পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে না আসায় নির্ধারিত তারিখে স্কুল-কলেজ খোলা হচ্ছে না বলে শনিবার দুপুরে জানিয়েছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে গত ১৪ মাস ধরে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। সরকারের সর্বশেষ ঘোষণা অনুযায়ী, ২৩ মে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার কথা ছিল। আর বিশ্ববিদ্যালয় খোলার কথা ছিল ২৪ মে।

গত বছরের মার্চে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হলে ১৭ মার্চ থেকে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়। এক বছর বন্ধ থাকার পর গত ৩০ মার্চ দেশের প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার ঘোষণা দিয়েছিল সরকার। কিন্তু করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হওয়ায় তা আর সম্ভব হয়নি।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, করোনা কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসার পর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হলেও প্রথমে তা সবার জন্য খুলবে না। প্রথমে শুধু মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের জন্য শ্রেণিকক্ষ খোলা হবে। তাদের সংক্ষিপ্ত পাঠ্যসূচিতে ক্লাস নেয়ার পর পরীক্ষা গ্রহণের পরিকল্পনা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *