নিউজরুম ৭১॥ বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে রবিবার গুলশানে দলের চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

এর আগে সকালে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয় খালেদা জিয়ার করোনা টেস্ট রিপোর্ট পজিটিভ। তখন তার করোনা পরীক্ষাই করা হয়নি বলে দাবি করেন দলটির নেতারা। তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পরিবারের এক সদস্য খালেদা জিয়ার করোনা পজিটিভ হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘শুধু খালেদা জিয়া একা নন, পরিবারের সদস্যরা যারা তার সংস্পর্শে এসেছেন সবাই করোনা পজিটিভ। ’

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে জানানো হয়, আইসিডিডিআর,বি ল্যাবরেটরিতে গত শনিবার করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা জমা হয়। এরপর আরটি পিসিআর পদ্ধতিতে পরীক্ষা করা হয়। ১১ এপ্রিল খালেদা জিয়ার করোনার নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে ফলাফল ‘পজিটিভ’ আসে।

তবে দিনের শুরুতে দলের চেয়ারপারসনের করোনা ‘পজিটিভ’ হওয়ার বিষয়ে কিছু জানা নেই বলে সাংবাদিকদের জানান বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ‘আমি এখনো নিশ্চিত নই। মিডিয়া থেকে খবর পাচ্ছি। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও বেগম জিয়ার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট দেখলাম। আমি ব্যক্তিগতভাবে গুলশান কার্যালয়ে যোগাযোগের চেষ্টা করছি। নিশ্চিত হলে জানাব।’

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ তথ্য কর্মকর্তা মো. মাইদুল ইসলাম প্রধান সাংবাদিকদের বলেন, ‘খালেদা জিয়ার করোনা শনাক্ত হয়েছে। তার করোনা পজিটিভ, এটা শতভাগ সত্য।’

তবে খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ও তার ভাগনে ডা. মামুন সাংবাদিকদের বলেন, ‘ওনার করোনা পরীক্ষা করা হয়নি। যে রিপোর্ট ভাইরাল হয়েছে, এটা ভুয়া। এটা সঠিক নয়।’

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শায়রুল কবির খান সাংবাদিকদের প্রথমে বলেন, ‘খালেদা জিয়ার করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হয়নি। আমি যা বলছি এটাই ঠিক।’

বিএনপিপন্থী চিকিৎসকদের সংগঠন ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ড্যাব) সভাপতি হারুন আল রশীদ দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘ম্যাডামের চিকিৎসার বিষয়টি পরিবার দেখে। বিশেষ করে ডা. মামুন বাসায় যাওয়া আসা করেন, তিনি ভালো বলতে পারবেন। তিনি যেটা বলবেন সেটাই অথেনটিক। ম্যাডামের করোনা পজিটিভ কি নেগেটিভ তা আমি জানি না।’

কিন্তু দিনের শেষভাগে ফখরুল সংবাদ সম্মেলনে এসে বলেন, ‘দেশনেত্রীর চিকিৎসা শুরু হয়েছে। তিনি ভালো আছেন। তার রোগমুক্তির জন্য দোয়া করবেন।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *