নিউজরুম ৭১॥ যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে নিহত ছয় বাংলাদেশির গ্রামের বাড়ি পাবনার দোহারপাড়ায় চলছে শোকের মাতম। এমন মৃত্যুর সংবাদ মেনে নিতে পারছেন না কেউই। এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত প্রত্যাশা করছেন স্বজনেরা। সেই সাথে নিহতদের মরদেহ দেশে ফিরিয়ে আনতে চাইছেন সরকারের সহযোগিতা।

টেক্সাসের আল্যান শহরে সোমবার একটি বাংলাদেশি পরিবারের ছয় সদস্যের সবার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরিবারটির দুই ছেলে বাকি চারজনকে হত্যার পর নিজেরা আত্মহত্যা করেছে বলে পুলিশের বরাত দিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যম জানিয়েছে। নিহতদের গ্রামের বাড়ি পাবনার দোহারপাড়া এলাকায়। 

এই ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর থেকে শোকে স্তব্ধ দোহারপাড়া এলাকা। নিহতদের স্বজনেরা জানায়, দীর্ঘ ৩০ বছর ধরে পরিবার নিয়ে আমেরিকায় বসবাস করছিলেন তৌহিদুর রহমান। হঠাৎ কেন এমন ঘটনা ঘটলো, তাই ভেবে পাচ্ছেন না তারা। 

এদিকে, দুই ছেলে পরিবারের চারজনকে হত্যার পর নিজেরা আত্মহত্যা করেছে, এমনটি বিশ্বাস করতে পারছেন না স্বজনেরা। এ হত্যার পেছনে তৃতীয় কোন পক্ষ থাকতে পারে বলে সন্দেহ তাদের। 

নিহত ছয়জনের মরদেহ দেশে ফিরিয়ে আনার ব্যাপারে সরকার যেন সহযোগিতা করে, সেই প্রত্যাশা করছেন স্বজনেরা। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *